Sunday, September 25, 2022
Homeলাইফ স্টাইলBenefits Of Face Pack Of Mustard; ত্বকের যত্ন নিতে ব্যবহার করুন এই...

Benefits Of Face Pack Of Mustard; ত্বকের যত্ন নিতে ব্যবহার করুন এই তেল

ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা

Benefits Of Face Pack Of Mustard

কলকাতা; ঝাঁঝালো স্বাদের জন্য সরিষার তেল অনেকেরই পছন্দ। বিভিন্ন রকম রান্নার কাজে, ভর্তা কিংবা আচার তৈরিতে সরিষার তেল দরকার পড়েই। কিন্তু শুধু স্বাদের জন্য নয়, এটি আরও নানা কারণে প্রয়োজনীয়। শরীরের নানা সমস্যা দূরে রাখতে সরিষার তেল ভীষণ কার্যকরী। ত্বক ও চুলের যত্নে সরিষার তেল খুবই উপকারী। নিয়মিত ত্বক ও চুলের যত্নে সরিষার তেল ব্যবহার করতে পারেন।

মুখে সরিষার তেল দিয় মালিশ করলে ত্বকে অনেক উপকার মেলে। সরিষার তেল দিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক ব্যবহার করলে মুখের দাগ দূর হবে সহজেই।

mustardoil 1527676591 1640007509

Benefits Of Face Pack Of Mustard

ফেসপ্যাক তৈরির পদ্ধতি
সরিষার তেলের ফেসপ্যাক তৈরির জন্য ২ চামচ সরিষার তেল, ১ চামচ বেসন, ১ চামচ দই এবং আধা চামচ লেবুর রস নিন। একটি বাটিতে সরিষার তেল, দই, বেসন এবং লেবুর রস একসঙ্গে ভালোভাবে মিশ্রিত করে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। এরপর মুখে লাগিয়ে মিনিট বিশেক রেখে দিন। তারপর ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এরপর মুখে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করবেন।

Benefits Of Face Pack Of Mustard

ট্যান দূর করে
রোদ শরীরের জন্য ভালো হলেও অতিরিক্ত রোদ নানা সমস্যার কারণ হতে পারে। রোদ থেকে বাঁচতে সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন অনেকেই। এরপরও প্রতিদিন রোদে বের হতে হলে অনেক সময় ত্বকে ট্যান পড়ে যায়। সরিষার তেলের ফেসপ্যাক প্রয়োগ করলে ত্বকের ট্যান কমে যায়। এই ফেসপ্যাকের একটি উপাদান হলো লেবু। আর লেবুতে ভিটামিন সি রয়েছে যা ত্বকের ট্যান দূর করতে সহায়ক।

20161109201341

Benefits Of Face Pack Of Mustard

ত্বক উজ্জ্বল করে
সরিষার তেলের ফেসপ্যাক ব্যবহার করলে ত্বকের ডার্ক স্পট কমার পাশাপাশি ত্বক উজ্জ্বল হয়। রাতে শোয়ার সময় সরিষা এবং নারিকেল তেল একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে ব্যবহার করতে পারেন।

Benefits Of Face Pack Of Mustard

ফাইন লাইনসের জন্য

ফাইন লাইনস কমাতে সরিষার তেল খুবই কার্যকর বলে মনে করা হয়। বলিরেখা কমাতে হালকা গরম তেল নিয়ে মুখে ম্যাসাজ করুন। ম্যাসাজ করার পরে, একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে অতিরিক্ত তেল মুছে ফেলুন। ফল পাবেন হাতেনাতে!

Benefits Of Face Pack Of Mustard

सरसों के तेल का फेस पैक

ফাটা ঠোঁটের জন্য
লিপবাম কিংবা পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করলে ঠোঁট এক থেকে দুই ঘণ্টা নরম থাকে, কিন্তু তারপর আবার একই সমস্যা দেখা দেয়। রাতে ঘুমানোর সময় নাভিতে সরিষা তেলের কয়েক ফোঁটা দিয়ে রাখলে ঠোঁট ফাটার সমস্যা দূর হবে।

Benefits Of Face Pack Of Mustard

আরও পড়ুন: Tips To Keep Paneer Fresh; ফ্রিজেও পনির নষ্ট? মেনে চলুন কয়েকটি নিয়ম

আরও পড়ুন: Is Drinking Cold Water Bad? ঠান্ডা জল আপনার জন্য ভালো না খারাপ?

Publish By Abanti Roy

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular