Friday, December 9, 2022
Homeস্বাস্থ্যHeadache Remedies : মাথাব্যথার ঘরোয়া প্রতিকার

Headache Remedies : মাথাব্যথার ঘরোয়া প্রতিকার

ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা

Headache Remedies

দৈনন্দিন দৌড়ঝাঁপ, কাজের চাপ, ব্যস্ততার জীবনে মাথা ব্যথা বলা যায় আমাদের জীবনের অঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আট থেকে আশি সকলেই মাথা ব্যথার শিকার হচ্ছে। মূলত আবহাওয়ার পরিবর্তন, পরিবেশ দূষণ, অত্যধিক স্ট্রেস, খাওয়ার অনিয়ম, শারীরিক রোগ বহু কারণে মাথা যন্ত্রণা হতে দেখা যায়। দীর্ঘ সময় একভাবে কম্পিউটারের সামনে বসে কাজ করা কিংবা পেন খাতা নিয়ে লেখালেখি করা, ট্র্যাফিক জ্যামে অনেকক্ষণ আটকে থাকা কিংবা অতিরিক্ত শব্দের মধ্যে থাকা সবকিছুই মাথাব্যথার কারণ হতে পারে। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় দুশ্চিন্তা, অতিরিক্ত ধূমপান, দীর্ঘদিন ধরে ব্যথানাশক ওষুধের অত্যধিক ব্যবহার, শরীরে জলের অভাব, মাইগ্রেনের ফলে মাথাব্যথার সমস্যা শুরু হয়।

Headache Remedies
তৎক্ষণাৎ মাথা ব্যথাথেকে মুক্তি পেতে অনেকেই বিভিন্ন ধরনের ওষুধ খেয়ে থাকেন। যেগুলি শরীরের পক্ষে তৎক্ষণাৎ আরাম দিলেও খুবই ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলে। সেজন্য ওষুধের দিকে না গিয়ে মাথা ব্যথা কমানোর জন্য বেশ কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি আছে যেগুলো ঠিক করে মেনে চললে মাথা ব্যথা থেকে চিরতরে মুক্তি পাওয়া যাবে।

প্রচুর জল পান
অনেক সময় শরীরে জলের অভাবে মাথাব্যথার অভিযোগ থাকে। শরীরে জলের অভাবের কারণে ডিহাইড্রেশন হয়, যা মাথাব্যথা এবং মাইগ্রেনের মতো সমস্যার কারণ। মাথাব্যথা হলে ২-৩ গ্লাস জল পান করুন। আপনার শরীরকে হাইড্রেটেড রাখার চেষ্টা করুন এবং প্রচুর জল পান করুন।

তুলসী এবং মধু
আপনি যদি প্রচণ্ড মাথাব্যথার সমস্যায় ভুগে থাকেন, তাহলে তুলসী পাতার সাহায্যে এর থেকে মুক্তি পেতে পারেন। যখনই মাথাব্যথা হয় তখন এক কাপ জলে কিছু তুলসী পাতা দিয়ে চায়ের মতো ফুটিয়ে নিন। এতে মধু যোগ করে সেবন করুন। আপনি কিছুক্ষণের মধ্যে পার্থক্য অনুভব করবেন।

ঘুম
ঘুমের অভাব বা দুর্বল ঘুমের সময়সূচীর কারণে আপনি প্রায়ই মাথাব্যথার অভিযোগ করবেন। শারীরিক ও মানসিক উভয় স্বাস্থ্যের জন্যই ভালো ঘুম অপরিহার্য। তাই রাতে অন্তত ৬ থেকে ৯ ঘণ্টা ঘুম নিশ্চিত করুন। যারা ৬ ঘণ্টা বা তার বেশি ঘুমান, তাদের মাথাব্যথার অভিযোগ সবচেয়ে কম।

যোগব্যায়াম
যোগব্যায়াম ভঙ্গি আপনাকে আপনার মাথাব্যথা কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করতে পারে। নমনীয়তা বাড়াতে, ব্যথা কমাতে, চাপ উপশম করতে এবং সামগ্রিক জীবনের মান উন্নত করতে সাহায্য করে। যোগব্যায়াম ভঙ্গি মাথাব্যথা এবং মানসিক চাপ উপশম করতে সাহায্য করতে পারে।

পুদিনা পাতা
অস্বস্তিকর মাথা ব্যথাকমানোর জন্য একটি অন্যতম ঘরোয়া উপাদান হলো পুদিনা পাতার রস। পুদিনা পাতার মধ্যে থাকা ম্যানথল ও ম্যানথন জাতীয় উপাদান গুলি মাথা ব্যথাদূরীকরণে মুখ্য ভূমিকা গ্রহণ করে। এছাড়াও এটি শরীরে এক ধরনের আরামদায়ক পরিস্থিতির সৃষ্টি করে, যার ফলে মাথা ব্যথা থেকে খানিক রেহাই পাওয়া যায়।

যষ্টিমধু
মাথা ব্যথার ঘরোয়া প্রতিকার করতে যষ্টিমধু হলো অন্যতম একটি প্রাকৃতিক উপাদান। এটি লজেন্সের মতো কিংবা চা বানিয়ে কিংবা এর তেল খাওয়া যায়। মূলত মাথা ব্যথা, হাইপারটেনশন, পেশির দুর্বলতা, শরীরে পটাশিয়ামের ভাগ কমে গেলে কিংবা হূদযন্ত্রের সমস্যা দেখা দিলে এটি গ্রহণ করা যেতে পারে। টেনশন কমাতে মুখ্য ভূমিকা গ্রহণ করে যষ্টিমধু। যার ফলে এটি মাথা ব্যথা নাশক হিসেবেও পরিচিত।

চন্দন গুঁড়ো
অ্যারোমা চিকিৎসায় যে কোন ধরনের গন্ধদ্রব্যকেই বিভিন্ন রোগ নিরাময়ের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়। গন্ধ চিকিৎসার মাধ্যমে মাথা ব্যথাকমাতে একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হলো চন্দন। এটির সুন্দর গন্ধ নেওয়ার ফলে যে কোনো ধরনের মাথাব্যথা, চিন্তা কিংবা উদ্বেগ কমে গিয়ে মাথায় এক আরামদায়ক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। এছাড়াও চন্দনের তেল এর ঘ্রান নিয়ে মাথা ব্যথাকমাতে পারেন। এটি যে কোনো ধরনের উদ্বেগ এবং মানসিক চাপ কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

কফি ও চা-এ না
মাথা যন্ত্রণা হলেই চা বা কফির উপর নির্ভর করেন অনেকেই। আমাদের ধারণা চা বা কফি মাথাব্যথা সারায়। আসলে কফির ক্যাফিন স্নায়ুকে উদ্দীপ্ত করে ফলে ব্যথা কমেছে বলে মনে হয়। সে ধারণা ভুল। উল্টে মাথা ব্যথা সারাতে বেশি মাত্রায় চা-কফি শরীরের অন্য জটিলতা ডেকে আনতে পারে ও ক্যাফিন নির্ভর করে তুলতে পারে, যা ক্ষতিকর।

Headache Remedies

আর ও পড়ুন  Women Look Old Due To Busy Work : ৪০ পার করার পর মহিলাদের বার্ধক্য রোখার সহজ উপায়

Publish by abantika

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular