Saturday, January 28, 2023
Homeলাইফ স্টাইলHome Remedies To Control Low BP লো ব্লাড প্রেশারের লক্ষণ ও নিয়ন্ত্রণের...

Home Remedies To Control Low BP লো ব্লাড প্রেশারের লক্ষণ ও নিয়ন্ত্রণের উপায় সম্পর্কে জানুন

শালু রাজপুত, আম্বালা, ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা, Home Remedies To Control Low BP উচ্চ রক্তচাপ নিয়ে আমরা যতটা সচেতন, নিম্ন রক্তচাপ নিয়ে তেমন গুরত্ব দেই না। গরমের সময় অনেকেরই রক্তচাপ কমে যায়। সাধারণত একজন সুস্থ স্বাভাবিক মানুষের রক্তচাপ হওয়া উচিত ১২০/৮০। এর উপর ভিত্তি করেই উচ্চ রক্তচাপ আর নিম্ন রক্তচাপ পরিমাপ করা হয়। প্রেশার বৃদ্ধি বা হ্রাস দুটোই স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। রক্তচাপ যদি ৯০/৬০ এর আশেপাশে থাকে তাহলে তাকে লো প্রেশার বলা হয়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে লো প্রেসার তেমন ক্ষতির কারণ না হলেও, দীর্ঘমেয়াদি লো প্রেশার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকার।

লো প্রেশারের লক্ষণ ও প্রতিকার Home Remedies To Control Low BP

লক্ষণ

কিছু লক্ষণ থেকে আমরা খুব সহজেই লো প্রেসার আক্রান্ত ব্যক্তিকে শনাক্ত করতে পারি। সঠিক সময়ে রোগ চিহ্নিত হলে নিরাময় অনেক সহজ হয়ে যায়।

১. মাথা ঘোরানো বা মাথা হালকা অনুভূত হওয়া।

২. বসা থেকে উঠে দাঁড়ালে হঠাৎ মাথা ঘুরে যাওয়া বা ভারসাম্যহীন হয়ে যাওয়া।

৩. মাথা ঘুরে অজ্ঞান হয়ে যাওয়া।

৪. চোখে অন্ধকার বা ঝাপসা দেখা।

৫. বমিভাব।

৬. শারীরিক বা মানসিক অবসাদ।

৭. খুব বেশী তৃষ্ণা অনুভূত হওয়া।

৮. ঘনঘন শ্বাস-প্রশ্বাস নেওয়া।

৯. হাত-পা ঠান্ডা হয়ে যাওয়া।

১০. প্রস্রাব কমে যাওয়া।

প্রতিরোধে ঘরোয়া প্রতিকার Home Remedies To Control Low BP

লবণ জাতীয় খাবার

Eat extra raw salt in food Unknowingly doing great damage

যে সব খাবারে নুনের পরিমাণ বেশি তা রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয়। তাই উচ্চ রক্তচাপ থাকলে যেমন কাঁচা নুন খেতে বারণ করেন চিকিৎসকরা, তেমনই রক্তচাপ কম থাকলে নুন জাতীয় খাবার খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। জলপাই, চিজ, যে কোনও রকমের সামুদ্রিক মাছ ডায়েটে রাখতে পারেন। আপনার পছন্দ অনুযায়ী টেবিল সল্ট বা সি সল্ট রান্নায় দিন। এছাড়াও এক গ্লাস জলে নুন গুলে খেতে পারেন। এই জল সপ্তাহে একবার খেলেই হবে।

ক্যাফেন জাতীয় খাবার

resize 350x250x0image 175220

চা, কফি অর্থাৎ ক্যাফেন জাতীয় খাবার হার্ট রেট বাড়ায়। সাময়িক ভাবে বাড়িয়ে দেয় রক্তচাপ। তবে এর প্রভাব কম সময়ের জন্য় স্থায়ী হয়। আর সবার ক্ষেত্রেই যে ক্যাফেন জাতীয় খাবার একই ভাবে রক্তচাপ বাড়াবে, তারও কোনও নিশ্চয়তা নেই। যদি একেবারেই এই জাতীয় পানীয় তালিকায় না থাকে, তাহলে রক্তচাপ কমের সমস্যা থাকলে চা, কফি খাওয়া শুরু করতে পারেন

জল

1606285567 5fbdf8ff510b0 water

প্রচুর জল খেতে হবে। অথবা তরল পানীয়, যা জলের সাপলিমেন্ট হিসেবে কাজ করবে তা খেতে হবে। শরীর ডিহাইড্রেট হয়ে গেলে ব্লাড ভলিউম কমে যায়। যা ফলে কমে যায় রক্তচাপ। তাই দিনে অন্তত আট গ্লাস জল খেতেই হবে। তবে আবহাওয়া অনুযায়ী এর পরিমাণ বাড়বে। যেমন গরমকালে শরীরের বেশি জলের প্রয়োজন হয়।

মিষ্টি

Rasogolla DiGi
চকলেট এবং টফিও আপনার রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। ডায়াবেটিস বা অন্যান্য রোগে মিষ্টি কম খাওয়া উচিত, এই ধরনের ব্যক্তিদের শুধুমাত্র ডাক্তারের পরামর্শে মিষ্টি খাওয়া উচিত।

বিটের রস

বিটের রস ত্বকের জন্য ভাল কেনকাঁচা বিটরুট আপনার রক্তচাপ বাড়িয়ে দিতে পারে। এই সব্জি আপনার দৈনিক ডায়েটে যোগ করুন। আপনার স্যালাডেও বিট দিতে পারেন। কিংবা বিট রুটের রস বা স্মুদি বানিয়ে খেতে পারেন। জলের বদলে এক গ্লাস বিটরুটের রস খেলেন। এতে আপনার নিম্ন রক্তচাপ জনিত সমস্যা সমাধান হতে পারে।

নির্দিষ্ট সময়ে খাওয়া

ব্রেকফাস্ট বাদ দিয়ে একবারে লাঞ্চ করেন অনেকে। কেউ বা সময়টা একটি এগিয়ে এনে লাঞ্চ করেন। রক্তচাপ কম থাকলে এটা করা যাবে না। বরং ২৪ ঘণ্টার সার্কেলে পাঁচবার খাওয়া অভ্যেস করুন। এতে খাবার পরিমাণও বেশি হবে না। আবার রক্তচাপও নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

আরও পড়ুন : How To Keep Yourself Hydrated In Summer দরজায় কড়া নাড়ছে গ্ৰীষ্ম, নিজেকে কীভাবে হাইড্রেট রাখবেন, জানুন

আরও পড়ুন : Weight Loss Drink নিয়ম করে পান করুন তেজপাতা চা, ওজন কমবে তরতরিয়ে

____

Published by Julekha Nasrin

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular