Tuesday, October 4, 2022
HomeদেশFrance Minister Statement on Hijab Controversy ভারতের মতো ফ্রান্সেও দেখা দিয়েছিল হিজাব...

France Minister Statement on Hijab Controversy ভারতের মতো ফ্রান্সেও দেখা দিয়েছিল হিজাব বিতর্ক

সমীর সাইনি, নতুন দিল্লি, ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা,France Minister Statement on Hijab Controversy ভারতে হিজাব বিতর্ক বাড়ছে ক্রমশ। কেউ কেউ বলছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাবের বদলে ইউনিফর্ম পরা ঠিক। অন্যদিকে কিছু মানুষ হিজাব পরে আসা মেয়েদের সমর্থন করছেন। তাদের মতে, কে কী পোশাক পরবে সেটা তার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত।

২০০৪ সালে ফ্রান্স সরকার স্কুলে হিজাব এবং অন্যান্য ধর্মীয় পরিচয় বহন নিষিদ্ধ করে France Minister Statement on Hijab Controversy 

89443904

অন্যদিকে, ভারতের মত ফ্রান্সেও চলছে হিজাব বিতর্ক। ফ্রান্সের সরকার ২০০৪ সালে সব সরকারি স্কুলে হিজাব এবং অন্যান্য ধর্মীয় পরিচয় বহন নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। ফলে বহু মুসলিম মেয়ের স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে যায়।হিজাব পরা নিষিদ্ধ করার পক্ষে ভোট দেবার পর মুসলিম ছাত্রীদের প্রতিক্রিয়া ছিল, পড়ার বই আর হিজাব দুটোই তাদের পরিচয়ের অংশ। আবার অনেকে দাবি করে, হিজাব তাদের শরীরের অবিচ্ছেদ্য অংশ, তাদের ব্যক্তিসত্ত্বার অংশ। স্কুলে ঢোকার পরে সেটা খুলতে বাধ্য করা তাদের ব্যক্তিসত্ত্বার অপমান।

১৯৮০ সালের শেষ দিক থেকে মুসলিম নারীদের হিজাব পরা নিয়ে ফ্রান্সে বিতর্ক তৈরি হয় France Minister Statement on Hijab Controversy 

পশ্চিম ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে সর্বাধিক সংখ্যক মুসলিমের বাস ফ্রান্সে। ফ্রান্সে গির্জা ও রাষ্ট্রকে পৃথক রাখার যে আইন রয়েছে ফরাসী ভাষায় তাকে বলে ‘লে-ল্যসিটে ‘, যেটি ধর্মনিরপেক্ষতার মূল স্তম্ভ। ১৯৮০ সালের শেষ দিক থেকে মুসলিম নারীদের হিজাব পরা নিয়ে ফ্রান্সে একটা বড় ইস্যু হয়ে উঠেছিল। কয়েকজন শিক্ষক শুরু করেছিলেন এই বিতর্ক। সেই সব শিক্ষকদের দাবি ছিল, স্কুলে মেয়েদের হিজাব পরা ফ্রান্সের ধর্মনিরপেক্ষ নীতির পরিপন্থী।

বর্তমানে ফ্রান্সের মন্ত্রী এলিজাবেথ মোরেনো হিজাবের দাবিকে সমর্থন করেছেন France Minister Statement on Hijab Controversy 

Screenshot 20220211 160443

কিন্তু বর্তমানে, ফ্রান্সের জেন্ডার ইকুয়ালিটি বিষায়ক  মন্ত্রী বৃহস্পতিবার মুসলিম নারী ও মহিলা ফুটবলারদের  হিজাব পরার দাবিকে সমর্থন করেছেন। উল্লেখ্য, ১৯৮০ সাল থেকে ফ্রান্সের ফুটবল ফেডারেশনের নিয়ম অনুসারে, ম্যাচে অংশগ্রহণকারী মুসলিম খেলোয়াড়দের  হিজাব বা ইহুদি কিপ্পার মতো ধর্মীয় প্রতীক পরে মাঠে নামা  নিষিদ্ধ ছিল। কিন্তু ক্রমাগত, মাঠে হিজাব পরে খেলার দাবি জোরালো হচ্ছিল। মন্ত্রী এলিজাবেথ মোরেনো মেয়েদের এই দাবিকে সমর্থন করে বলেছেন, আইনে কোথাও লেখা নেই, যে মেয়েরা হিজাব পরে ফুটবল খেলতে পারবে না।

ভারতে হিজাব পরা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে কর্ণাটকের উদুপি জেলা থেকে France Minister Statement on Hijab Controversy 

উল্লেখ্য, ভারতে হিজাব পরা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে কর্ণাটকের উদুপি জেলা থেকে। যেখানে হিজাব পরার কারণে কিছু ছাত্রীকে ক্লাসে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। কলেজের যুক্তি ছিল, এখানে ইউনিফর্ম প্রযোজ্য। ফলে  ভিন্ন পোশাক পরে আসা লোকজনকে কলেজে বসতে দেওয়া হবে না। ওই ছাত্রীরা কলেজের এই মনোভাবের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন করেন। ছাত্রীদের যুক্তি ছিল,  হিজাব পরার অনুমতি না দেওয়া মৌলিক অধিকার লঙ্ঘন এবং অনুচ্ছেদ ১৪ এবং ২৫ নং ধারা লঙ্ঘন করা। যা নিয়ে দেশজুড়ে চলছে বিতর্ক, রাজনৈতিক দলাদলি।

আরও পড়ুন : Hijab Controversy Updates হিজাব বিতর্কে হস্তক্ষেপ করবে না সুপ্রিম কোর্ট

___

Published by Julekha Nasrin

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular