Friday, September 30, 2022
HomeদেশSirsa Letest News বাড়িতে আগুন দেওয়ার হুমকি, ভয়ে গ্রাম ছেড়ে পালাল দলিত...

Sirsa Letest News বাড়িতে আগুন দেওয়ার হুমকি, ভয়ে গ্রাম ছেড়ে পালাল দলিত পরিবার

ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা, সিরসা : Sirsa Letest News বাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকির দেওয়ার জেরে শাহপুরিয়া গ্রাম ছাড়তে বাধ্য করা হল একটি দলিত পরিবারকে। সকালে পরিবারের ৪০ জন পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে পুলিশি নিরাপত্তার দাবিতে গেলেও নিরাপত্তা পাননি।

এরপরে, অত্যাচারিত দলিত পরিবার জেলা ও দায়রা আদালতে পৌঁছায় এবং তাঁদের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সঞ্জু বালা এবং জ্যোতি বাত্রার মাধ্যমে পুলিশি সুরক্ষার আবেদন করেন। আবেদনটি গুরুত্ব সহকারে গ্রহণ করে জেলা ও দায়রা বিচারক রাজেশ মালহোত্রা সিরসার পুলিশ সুপারকে নির্দেশ জারি করেছেন যে, দলিত পরিবারকে অবিলম্বে সুরক্ষা দেওয়া উচিত। এছাড়াও অত্যাচারিত পরিবারের নাবালক ছাত্রকে পুলিশি নিরাপত্তায় দশম শ্রেণির পরীক্ষায় বসার নির্দেশ দেয় আদালত।

আসামি গ্রেফতার হয়নি Sirsa Letest News

আমরা জানিয়ে রাখি যে, ২৬ মার্চ চৌপাতা থানা এক দলিত নাবালক ছাত্রকে লাঞ্ছিত করা এবং তাঁর নাম কেটে দেওয়ার জন্য গ্রামের শাহপুরিয়া সরকারি সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুলের অধ্যক্ষ বলজিৎ সিং-সহ প্রায় ১০ জন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধারায় মামলা দায়ের করেছিল। কিন্তু অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়নি। জেলা প্রশাসকের নির্দেশে অধ্যক্ষ দশম শ্রেণির পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র প্রদান করেন। এরপর বিক্ষুব্ধরা ওই ছাত্রের পরিবারকে হুমকি দিতে থাকে যে যাই ঘটুক না কেন, দশম শ্রেণির পরীক্ষা দিতে দেবে না এবং তাঁদের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেবে।

বাবা ও ছেলেকে মারধর করা হয় Sirsa Letest News

অত্যাচারিত নাবালক ছাত্রের বাবা শাহপুরিয়া গ্রামের বাসিন্দা বিজয় জানান, তার ১৫ বছরের ছেলে ওই গ্রামের সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণিতে পড়ে। একই ক্লাসে অধ্যয়নরত একজন ছাত্র ছেলের বিরুদ্ধে জাত বৈষম্যের কথা তোলে। সম্প্রতি স্কুলে পরীক্ষা ছিল। তাঁর ছেলে পরীক্ষায় ভালো নম্বর পেয়েছে। ২০২২ সালের ১ মার্চ ওই ছাত্রটি তাঁর বাড়িতে আসে এবং ছেলেকে একটি বাইকে করে নিয়ে যায়।

কিছুক্ষণ পর ওই ছাত্রটি আবার বাড়িতে এসে বলল, তাঁর বাবা বিক্রম তোমাকে ডেকেছে। বিজয় সিং জানিয়েছেন যে, ওই ছাত্র তাঁকে গ্রামের বাইরে মাঠে নিয়ে যায় এবং সেখানে তাঁর ছেলেও উপস্থিত ছিল। এরপর আগে থেকেই এখানে থাকা বিক্রম এবং তার সঙ্গীরা বিজয় ও তাঁর নাবালক ছেলেকে মারধর করতে থাকে। জীবন বাঁচাতে কোনও রকমে সেখান থেকে পালিয়ে বাঁচে বাবা-ছেলে। পরদিন বিজয়ের ছেলে স্কুলে গেলে অধ্যক্ষ তাঁকে আসতে বাধা দেন।

Sirsa Letest News

আরও পড়ুন : Chief Minister Bhagwant Mann Decision পঞ্জাবে ফি বাড়বে না বেসরকারি স্কুলের, নিজেরাই ইউনিফর্ম ও বই কিনতে পারবেন অভিভাবকরা

————
Published by Subhasish Mandal

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular