Wednesday, February 1, 2023
Homeরাজ্যকোচবিহারCooch Behar Municipality Election কোচবিহারের ১২ নম্বর ওয়ার্ডে পোস্টার, ফ্লেক্স, ফেস্টুন ছেঁড়া...

Cooch Behar Municipality Election কোচবিহারের ১২ নম্বর ওয়ার্ডে পোস্টার, ফ্লেক্স, ফেস্টুন ছেঁড়া নিয়ে কাজিয়া

অমিত সরকার, কোচবিহার, ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা : Cooch Behar Municipality Election ২৭ ফেব্রুয়ারি পৌর নির্বাচনের আগে কোচবিহারের ১২ নম্বর ওয়ার্ডে দেখা গেল বিভিন্ন দলের প্রার্থীর পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ প্রতিটি দলের। সবাই সবার দিকে আঙুল তুলছে অভিযোগের। পৌর ভোটের আগে রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়েছে প্রায় প্রত্যেক দলের মধ্যেই। তারই মধ্যে বিভিন্ন দলের পতাকা এবং ব্যানার ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক সরগরম কোচবিহারে।

আজ কোচবিহারের ১২ নম্বর ওয়ার্ডে রাস্তার নর্দমায় ছিঁড়ে পড়ে আছে বিভিন্ন দলের প্রার্থীদের ভোট প্রচারের ব্যানার এবং দলীয় পতাকা। এই নিয়ে ১২ নং ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী কমলেশ গোস্বামী জানান, ‘আমরা প্রচারে বেরিয়ে শুনতে পাই বামফ্রন্টের প্রার্থী দেবজ্যোতি গোস্বামী আমাদের কয়েকটা কয়েকটা ছেলেকে বলছে যেটা করছিস ভালো করছিস না। ওরা বুঝতে পারছে ওদের পাশে কেউ নেই। ওদের পায়ের মাটি খসে গেছে। থার্ড বা ফোর্থ কোনও পার্টি এই কাজ করছে। নিজেরাই নিজেদের পোস্টার ছিঁড়ে তৃণমূলকে কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা করছে।’

Cooch Behar Municipality Election

এ বিষয়ে দেবজ্যোতি গোস্বামী জানিয়েছেন, ‘যাদের পায়ের নিচে মাটি খসে পড়েছে তারাই এ কাজ করছে। গত ২৭ বছর ধরে এই ওয়ার্ডে বামফ্রন্ট ক্ষমতায় নেই। কোনও সময় কংগ্রেস, কোনও তৃণমূল ক্ষমতায় রয়েছে। গত ১০ বছর ধরেই কোনও কাউন্সিলরকে দেখা যায়নি এই ওয়ার্ডে। তাই যারা মাইক বাজিয়ে ফাটিয়ে বেড়াচ্ছেন উন্নয়নের কথা, মূলত কী উন্নয়ন হয়েছে সেটা সাধারণ মানুষ জবাব দেবে আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি।’

Cooch Behar Municipality Election

বিজেপি প্রার্থী নিখিল দাস জানিয়েছেন, ‘গত দশ বারো দিন ধরেই একই কাণ্ড ঘটে যাচ্ছে। তাদের ফ্লেক্স, ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলে দিয়ে তৃণমূলের ফ্লেক্স, ফেস্টুন লাগানো হচ্ছে। পাশাপাশি বামফ্রন্ট ও কংগ্রেসের পোস্টারও ছিঁড়ে ফেলে দেওয়া হচ্ছে। এভাবে ভয় দেখিয়ে কোনও ভাবে জেতা যাবে না বা চমকানো যাবে না। সবই সাধারণ মানুষ দেখছেন এবং সঠিক জবাব দেবে ২৭ ফেব্রুয়ারি।’

Cooch Behar Municipality Election

আরও পড়ুন : Jaynagar-Majilpur Municipality জয়নগর-মজিলপুর পুরসভা কি এবার ধরে রাখতে পারবে কংগ্রেস?

———–
Published by Subhasish Mandal  

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular