Friday, September 30, 2022
Homeরাজ্যনদিয়াDemonstration at Krishnanagar Sadar Hospital আট মাস মেলেনি বেতন! সুপারকে ঘিরে বিক্ষোভ...

Demonstration at Krishnanagar Sadar Hospital আট মাস মেলেনি বেতন! সুপারকে ঘিরে বিক্ষোভ কৃষ্ণনগর সদর হাসপাতালে

সুরজিৎ দাস, নদিয়া, ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা : কোভিড পরিস্থিতির মধ্যেও দীর্ঘ আট মাস হাসপাতালে সিকিউরিটি গার্ডের কাজ করেও মেলেনি বেতন। অবশেষে নিজেদের গলায় দড়ি পরে অভিনব কায়দায় হাসপাতালে সুপারকে ঘিরে বিক্ষোভ। ঘটনার জেরে ব্যাপক উত্তেজনা নদিয়ার কৃষ্ণনগর সদর হাসপাতালে।

আট মাস ধরে বেতন থেকে বঞ্চিত সিকিউরিটি গার্ডরা Demonstration at Krishnanagar Sadar Hospital

সূত্রের খবর, নদিয়ার শক্তিনগর জেলা হাসপাতালে এবং কৃষ্ণনগর সদর হাসপাতালে সিকিউরিটি সংস্থার একাধিক ব্যক্তি দীর্ঘ আট মাস ধরে হাসপাতালে ডিউটি করছেন। কিন্তু গত আট মাস ধরে তারা নিজেদের বেতন থেকে বঞ্চিত। বিক্ষোভকারীদের দাবি করোনা সংক্রমণের মধ্যেও নিজেদের জীবনকে বাজি রেখে তাঁরা নিয়মিত কাজ করেছেন। এর আগেও বেতনের দাবিতে জেলাশাসক থেকে শুরু করে জেলা স্বাস্থ্য দফতর এবং হাসপাতাল সুপারের কাছে লিখিতভাবে জানিয়েছেন তাঁরা। হাসপাতালে সুপার বারংবার আশ্বাস দিয়েছেন, খুব শীঘ্রই তাঁরা বেতন পেয়ে যাবেন। কিন্তু দীর্ঘ আট মাস অতিক্রান্ত হলেও এখনও মেলেনি বেতন। অবশেষে পরিবার নিয়ে না খেতে পেয়ে মরার আশঙ্কায় হাসপাতাল সুপারকে ঘিরে কার্যত বিক্ষোভ দেখাতে থাকে তাঁরা।

আরও পড়ুন : SDO of Jhargram in lockdown review লকডাউন কেমন হচ্ছে, নিজে গাড়ি চালিয়ে ঘুরলেন ঝাড়গ্রামের মহকুমা শাসক

নিজেদের গলায় দড়ি দিয়ে বিক্ষোভকারীদের দাবি, অবিলম্বে যদি প্রাপ্য বেতন পাওয়া না যায় তবে পরিবার নিয়ে আত্মহত্যা করতে হবে। এ বিষয়ে সিকিউরিটি সংস্থার দাবি, যেহেতু হাসপাতালের পক্ষ থেকে প্রাপ্য বকেয়া মিটিয়ে দেওয়া হয়নি, সেই কারণেই কর্মীদের মাইনে দিতে পারছেন না তারা। যদিও হাসপাতালে সুপার সোমনাথ ভট্টাচার্য বলেন, এর আগেও তিনি স্বাস্থ্য দফতরে লিখিত ভাবে জানিয়েছেন। কিন্তু কোনও টাকা না আসার কারণে বকেয়া মঞ্জুর করতে পারছেন না। যদিও বিক্ষোভকারীদের বিক্ষোভের ফলে গোটা হাসপাতাল চত্বরে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় কৃষ্ণনগর কোতোয়ালি থানার পুলিশ। বিক্ষোভকারীরা হাসপাতাল সুপারকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানোর পাশাপাশি হাসপাতালের পাশে একটি ধরনা মঞ্চ তৈরি করে সেখানে ধরনায় বসেছেন।

——-
Published by Subhasish Mandal

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular