Thursday, December 8, 2022
Homeরাজ্যনদিয়াMolestation in Nadia বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তিন বছর সহবাস, বিয়ের প্রশ্ন করতেই...

Molestation in Nadia বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তিন বছর সহবাস, বিয়ের প্রশ্ন করতেই বেধড়ক মারধর যুবতীকে

সুরজিৎ দাস, নদিয়া, ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা: Molestation in Nadia বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক যুবতীর সঙ্গে সহবাসের অভিযোগ। অবশেষে বিয়ের কথা বলতেই ওই যুবতীকে বেধড়ক মারধর অভিযুক্ত যুবক ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে। পুলিশ কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ায় অবশেষে আদালতের দ্বারস্থ ওই যুবতী। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার রানাঘাট থানার চন্দ্রপুর এলাকায়।

জানা যায় রানাঘাট থানার তারাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের চন্দ্রপুর এলাকায় বাসিন্দা ওই যুবতী। ১১ বছর আগে তাঁর বিয়ে হয়েছিল। তাঁর একটি নাবালিকা কন্যা সন্তানও রয়েছে। কিন্তু বিয়ের দুই বছর পর তার স্বামী তাঁকে ছেড়ে চলে যায়। তারপর থেকে স্বামীর সঙ্গে আর কোনও সম্পর্ক নেই ওই মহিলার। তিন বছর আগে তারাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের গাজিপুর এলাকার যুবক কৃষ্ণগোপাল নায়েক মহিলাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেয়। সেইমতো ওই যুবতীর সঙ্গে ওই যুবকের মেলামেশা শুরু হয়। যুবতীর অভিযোগ অভিযুক্ত কৃষ্ণগোপাল তাঁর বাড়িতে নিত্যদিন আসা-যাওয়া করত। শুধু তাই নয় ওই যুবতীও কৃষ্ণগোপালের বাড়ি নিয়মিত যেত।

তিন বছর ধরে এই সম্পর্ক চলার পর ওই যুবতী যখন বিয়ের কথা বলে দিন কয়েক আগে তখন তাঁকে রাস্তায় মারধর করে বলে অভিযুক্ত কৃষ্ণগোপাল। ওই যুবতী পরবর্তীকালে যখন কৃষ্ণগোপালের বাড়ি যায় তখন ওই যুবক এবং তার পরিবারের লোকজন তাঁকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেয় বলে অভিযোগ।

এরপরেই ওই যুবতী অবশেষে রানাঘাট থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। কিন্তু পুলিশ কোনরকম পদক্ষেপ না নেওয়ায় অবশেষে এসডিপিওর দ্বারস্থ হয়। কিন্তু রানাঘাট এসডিপিও অভিযোগ নিতে অস্বীকার করায় বাধ্য হয়ে রানাঘাট মহাকুমা আদালতের দ্বারস্থ হয় ওই যুবতী।

যদিও ওই যুবতী তোলা অভিযোগ অস্বীকার করেছে অভিযুক্ত যুবকের পরিবার। তারা বলেন মারধরের ঘটনাটি মিথ্যা। তবে ঘটনার কথা কিছুটা স্বীকার করে নিয়ে অভিযুক্তর বাবা বলেন তার ছেলেও কোনদিন এই সম্পর্কের কথা বলেনি। তবে তার ছেলে কৃষ্ণগোপাল এবং ওই যুবতী একই ক্লাসে পড়তে বলে পরিচয় হয়েছিল। ওই যুবতী চাইছেন হয় ওই যুবক তাঁকে বিয়ে করুক, না হলে আইন তাকে উপযুক্ত শাস্তি দিক ‌।‌‌‌‌

Molestation in Nadia

Published by Subhasish Mandal

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular