Friday, September 30, 2022
Homeরাজ্যকোচবিহারNeighbourhood schools open জেলায় জেলায় পাড়ায় শিক্ষালয়

Neighbourhood schools open জেলায় জেলায় পাড়ায় শিক্ষালয়

Neighbourhood schools open জেলায় জেলায় পাড়ায় শিক্ষালয় চালু

ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা:  সরস্বতী পুজোর একদিন পরেই গোটা রাজ্যে শুরু হল পাড়ায় পাড়ায় শিক্ষালয় কর্মসূচি।  বিভিন্ন জেলাতে এদিনই পাড়ায় পাড়ায় শিক্ষালয় কর্মসূচি উদ্বোধনে দেখা গেল উৎসাহ, তবে বিতর্কও রয়েছে। ইন্ডিয়া নিউজ বাংলার প্রতিনিধিরা বিভিন্ন জেলা থেকে তাদের প্রতিবেদন তুলে ধরেছেন।

হাওড়ায় শুরু হলো পাড়ায় শিক্ষালয়

অনুপ রায়,ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা, হাওড়া: রাজ্য সরকারের ঘোষণা অনুষ্ঠানে গোটা রাজ্যের মতন সোমবার থেকে হাওড়া তো শুরু হল পাড়ায় শিক্ষালয় কর্মসূচি । এদিন মধ্য হাওড়ার তারাসুন্দরী বালিকা বিদ্যালয় প্রাথমিক বিভাগের উদ্যোগে স্থানীয় ক্লাব প্রাঙ্গণে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় । উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন রাজ্যের সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায়, হাওড়া পুরো নিগমের প্রশাসনিক প্রধান ডক্টর সুজয় চক্রবর্তী । মন্ত্রী জানান দু’বছর ছোট ছোট শিশুরা ঘরে আবদ্ধ ছিল, রাজ্য সরকারের এই যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত তাদের শিশুমনের বিকাশ হবে, তারা ধীরে ধীরে স্কুলমুখী হবার যে অভ্যাস তা পুনরায় সৃষ্টি হবে । একইসঙ্গে ছাত্রী ও তাদের অভিভাবকরা জানান এই কর্মসূচির ফলে পুনরায় সরকারি শিক্ষা ব্যবস্থা শুরু হওয়ায় খুশি তারা । তবে মাঠ এর পরিবর্তে স্কুলে এই কর্মসূচি হলে ভালো হতো, এই বলে তারা জানিয়েছেন ।

 

কোচবিহারে চালু হলো পাড়ায় শিক্ষালয়, মুখে হাসি খুদে পড়ুয়াদের মুখে

অমিত সরকার, ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা, কোচবিহার; সরকারি নির্দেশ সোমবার থেকে পাড়ায়, পাড়ায় শিক্ষালয় চালু হল  কোচবিহার জেলার  শেষ প্রান্ত অসম বাংলা সীমানা ঘেঁষে শালডাঙ্গাতেও। সরকারি নির্দেশ মতো এদিন, শালডাঙ্গা বিদ্যাসাগর বিদ্যাপীঠ প্রাথমিক বিদ্যালয় ছাত্র-ছাত্রীরা স্কুল থেকে কিছুটা দূরেই স্থানীয় একটি অঙ্গনারী সেন্টারের মাঠকে বেছে নেন পাড়ায় শিক্ষালয় হিসাবে। আজ থেকে স্কুল খোলায় মুখে চওড়া হাসি ফুটেছে খুদে পড়ুয়াদের মুখে, স্কুলে আসতে পেরে খুশি শিক্ষকরাও।
করোনা বিধি-নিষেধের জেরে দীর্ঘ দু বছর থেকে বন্ধ প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো। স্কুলে আসতে না পেরে মানসিকভাবে সমস্যায় পড়েছিলেন ছোট ছোট খুদে পড়ুয়ারা। তবে সরকারি নির্দেশ মত সোমবার থেকে পাড়ায় শিক্ষালয় খোলায়, দীর্ঘদিন পর বন্ধু-দের সঙ্গে জমিয়ে খেলা, আড্ডা, গল্প করতে পেরে মুখে বেশ চওড়া হাসি ফুটেছে খুদে পড়ুয়াদের মুখে। দীর্ঘদিন পর স্কুলে ছাত্র ছাত্রীদের সঙ্গে দেখা করতে পেরে খুশি শিক্ষকরাও।
ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক তপন ভট্টাচার্য বলেন, দীর্ঘদিন পর মাঠে হলেও স্কুল খোলায় খুশির সকলেই, প্রথম দিন স্কুলপড়ুয়াদের করোনা সম্পর্কে অবগত করা হয়, তারপর জমিয়ে গল্প আড্ডা ও কবিতা, আবৃত্তির পর ছাত্র -ছাত্রীদের মিড ডে মিল দেওয়া হবে এই মাঠেই।

 

গঙ্গারামপুর হাইস্কুলের পাড়ায় শিক্ষালয় কর্মসূচিতে ভেজা মাঠ থাকায় বিতর্ক

পীযূষ সরকার, ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা,দক্ষিণ দিনাজপুর : সোমবার গঙ্গারামপুর হাইস্কুলের পাড়ায় শিক্ষালয় বসেছিল স্কুল সংলগ্ন মাঠে। আর সেখানেই বিতর্কের সূত্রপাত।
অভিবাবকদের অভিযোগ, খোলা মাঠে এবং স্যাঁতস্যাঁতে ভেজা জায়গায় ত্রিপল বিছিয়ে চলছে পঠন পাঠন। যার ফলে ছাত্রছাত্রীরা অসুস্থ হবার আশঙ্কা রয়েছে। পাশাপাশি করোনা বিধি অমান্য করেই বসানো হয়েছে ছাত্র-ছাত্রীদের। অভিবাবকদের আরো অভিযোগ, রাস্তা সংলগ্ন এই মাঠে পঠন-পাঠন চলায় রাস্তার গাড়ির শব্দ ও মাইকের শব্দে মাঝেমাঝেই মনো সংযোগ বিচ্ছিন্ন হচ্ছে ছাত্র-ছাত্রীদের।  অভিভাবকদের দাবি এইভাবে ক্লাস না করিয়ে যদি সপ্তাহে দু’দিন হলেও বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে ক্লাস করানো যেত তাহলে হয়তো ভালো হতো।  এদিন এই মর্মে প্রধান শিক্ষকের হাতে একটি স্মারকলিপি তুলে দেন অভিভাবকেরা।

নদিয়ায় খোলা মাঠের অভাবে উঠোনে পাড়ায় শিক্ষালয় নিয়ে বিতর্ক

সুরজিৎ দাস, ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা,নদিয়া: শহর অঞ্চলে সবুজ খোলা মাঠের অভাবে, বিদ্যালয়ের উঠানেই শুরু হলো পাড়ায় শিক্ষালয়, তীব্র রোদে ক্লান্ত খুদে হয়ে পড়েন পড়ুয়ারা। রাজ্য সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী বিদ্যালয়গুলোতে অষ্টম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর পঠন পাঠন শুরু হয়েছিল আগেই। প্রাক-প্রাথমিক সপ্তম শ্রেণী পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের পঠন পাঠন শুরু হয়েছে আজ থেকে পাড়ায়-পাড়ায় শিক্ষালয়। প্রায় ২২ মাস পর পঠন-পাঠন শুরু হয়েছে । কোভিড বিধি মেনে খোলা আকাশের নিচে শুরু হয়েছে পঠন পাঠন তবে সেগুলো অবশ্যই গ্রামাঞ্চলে। শহরাঞ্চলে খোলা মাঠ উন্মুক্ত আকাশের বড়ই অভাব তাই স্কুলেরই উঠোনে এ ধরনের শিক্ষালয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। অভিভাবকরা এধরনের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানালেও তীব্র রোদে শিশুরা অসুস্থ হয়ে যাচ্ছে বলে তাদের দাবি করলেন। আর একথা মানলেন শিক্ষক শিক্ষিকারা নিজেরাও। অনেক অভিভাবকই প্রশ্ন করলেন বিদ্যালয়ের বাইরে অমনোযোগী হয়ে পড়ে পড়ুয়ারা। এ বিষয়ে অবশ্য শিক্ষক-শিক্ষিকারা জানান আপাতত প্রাথমিকভাবে পরীক্ষামূলক ভাবে কয়েক দিন চলুক ,তারপর তা থেকে শিক্ষা নিয়ে সরকার নিশ্চয়ই নতুন কিছু চিন্তাভাবনা করবেন। আজ এমনই চিত্র উঠে গেল নদিয়ার বিভিন্ন বিদ্যালয়গুলি থেকে।

শালবনি ব্লকের শালবনি শৈশব শিশু উদ্যানে পাড়ায় শিক্ষালয়

পার্থ মুখার্জী, ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা,পশ্চিম মেদিনীপুর: পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির নির্দেশে এবং পরামর্শমতো পাড়ায় পাঠশালা প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করার উপলক্ষে প্রতি ব্লকে একটি করে মডেল পাঠশালার আয়োজন করা হয়েছে। এর মধ্যে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার শালবনি ব্লকের শালবনি শৈশব শিশু উদ্যান এ চক্তারিনি
প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশুদের কে নিয়ে এই পাঠশালার আয়োজন করা হয়। উপস্থিত ছিলেন মাননীয় বিদ্যালয় পরিদর্শক চন্দন খাটুয়া ,শালবনি ব্লকের বিডিও প্রণয় দাস মহাশয় এবং শিক্ষা কর্মদক্ষা ঊষা কুন্ডু মহাশয়া।

Screenshot 20220207 205117 WhatsApp

বহরমপুরে পাড়ায় শিক্ষালয় প্রকল্প

রাজীব ঘোষ, ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা, মূর্শিদাবাদ: মুর্শিদাবাদ জেলার সদর শহর বহরমপুরে পাড়ায় শিক্ষালয় প্রকল্প করা হল বহরমপুর মহাকালী পাঠশালা ও কাশেশ্বরী প্রাথমিক বিদ্যালয়। বহরমপুর ব্যারাক স্কোয়ারে মাঠে দীর্ঘ ২২মাস পরে চালু করা হয়েছে এই শিক্ষালয়। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঠন পাঠন শুরু হতেই চেনা ছন্দে ফিরতে শুরু করেছে ক্লাস ।যদিও খোলা মাঠে সোমবার থেকে এই পঠন পাঠন শুরু করা হয়েছে । খুশি পড়ুয়ারা এবং শিক্ষক শিক্ষিকা সকলেই।

Published by Samyajit Ghosh

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular