Saturday, October 8, 2022
HomepoliticalTMC leadership crisis  কালীঘাটের বাড়িতে জরুরি বৈঠক তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের, থাকবেন...

TMC leadership crisis  কালীঘাটের বাড়িতে জরুরি বৈঠক তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের, থাকবেন অভিষেকও

TMC leadership crisis  কালীঘাটের বাড়িতে জরুরি বৈঠক তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের, থাকবেন অভিষেকও

ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা, কলকাতা:  সম্প্রতি তৃণমূলের অন্দরে ১০৮টি পুরসভায় প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত নিয়ে প্রবল অসন্তোষ তৈরি হয়। গত শুক্রবার প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পর থেকেই শুরু হয় একের পর এক বিতর্ক।

‌দলের মধ্যে তৈরি হওয়া অস্থিরতার মধ্যে কালীঘাটের বাড়িতে জরুরি বৈঠক ডাকলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই বৈঠকে দলের শীর্ষস্থানীয় সব নেতাদের উপস্থিত থাকার কথা বলা হয়েছে। হাজির থাকবেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও। এখন দেখার সেই বৈঠক থেকে তৃণমূল নেত্রী কী বার্তা দেন।
শনিবার বিকেল ৫টার সময়ে জরুরি বৈঠক ডেকেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই বৈঠকে পার্থ চট্টোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত বক্সি, অরূপ বিশ্বাস, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের মতো সকলেরই হাজির থাকার কথা। পুরভোট থেকে শুরু করে দলে উদ্ভূত বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করবেন তৃণমূল নেত্রী। শুক্রবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান, ‘‌বিতর্ক তৈরি করে লাভ নেই। দলের মুখ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই।’‌ একইসঙ্গে তৃণমূলের আরেক নেতা ফিরহাদ হাকিমও জানান, ‘‌দলনেত্রীর সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। দলনেত্রী যা বলবেন, সেটাই দলের সিদ্ধান্ত।’‌

images 41 1

TMC leadership crisis

মমতাকে আনফলো করে আবার ফলো ! বিতর্ক চাপা দিতে নয়া গেমপ্ল্যান আইপ্যাকের !

অন্যদিকে ফের টুইটার বিবাদ। টুইটারে এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আনফলো করলেন প্রশান্ত কিশোর। তার সংস্থা আইপ্যাক টুইটারে আনফলো করলো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তবে উভয়ই অভিষেককে টুইটারে ফলো করেন।
ফের টুইটার বিচ্ছেদের খবর প্রকাশে আসতেই নতুন করে রাজনৈতিক সমীকরনের ইঙ্গিত দেখছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশ। প্রশ্ন উঠছে এখানেও দলের পাশাপাশি তাহলে কি পরিবারেও ভাঙ্গন হতে চলেছে? এহেন বিতর্ক শুরু হতেই ফের টুইটারে মমতাকে ফলো করল আইপ্যাক।
২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে ১৮ টি সিট পেয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। বিপুল জনসংযোগের অভাব এবং গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফলস্বরূপ এই ফলাফল হাতেনাতে পেয়েছিল ঘাসফুল শিবির। তারপরেই ইলেকশন স্ট্র্যাটেজিস্ট প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে রাজনীতির ময়দানে নতুন করে খেলা ঘোরাতে শুরু করে তৃণমূল কংগ্রেস।২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনের বৈতরণী পিকের ফর্মুলায় পার হয় তৃণমূল। কিন্তু কোথাও গিয়ে পিকের সঙ্গে ছন্দ মিলিয়ে চলতে পারছিলেন না দলের বর্ষীয়ান নেতৃত্বরা। একাধিকবার তারা এই বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে দরবার করেছেন। ক্ষোভের আগুনে ঘৃতাহুতি পরে পুরভোটের প্রার্থী তালিকা সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভ্রান্তি হওয়ার পরেই।

TMC leadership crisis

তৃণমূলের একটি সূত্র মারফত জানা যায় প্রশান্ত কিশোর ও তার সংস্থা আইপ্যাকের সঙ্গে সম্পর্ক শেষ করতে চলেছে দল। তা নিয়ে একাধিক নেতার গলায় একাধিক সুর শোনা যায়। যদিও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি।
দলের কোন কমিটির মিটিং বা প্রার্থী বাছাইয়ের কোন বৈঠক। সবেতেই হাজির থাকতেন প্রশান্ত কিশোর। শুধু তাই নয় শোনা যায় ত্রিপুরা গোয়া এবং মেঘালয়ের ক্ষেত্রে প্রশান্ত কিশোরের ফর্মুলার ওপর ভর করেই এগোচ্ছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু আগে জানানো হয়েছে বাংলা ত্রিপুরা এবং মেঘালয় আর প্রশান্ত কিশোর ও তার সংস্থা কাজ করবেনা। প্রশ্ন তাহলে এবার কি ভাবে ক্ষমতা দখলের লড়াইয়ে এগোবে তৃণমূল কংগ্রেস? যদিও সে প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যায়নি।

Published by Samyajit Ghosh

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular